১০ টি উপায়ে নিজেকে ভাল রাখতে পারেন।

Updated: Nov 18, 2020

বর্তমান সময়ে আমরা সবসময় বিভিন্ন বিষয় নিয়ে ব্যস্ত থাকি।চাকরি,বাজার করা,বাচ্চাদের দেখাশোনা করা,তাদের খাওয়ানো,সবকিছুর সাথে তাল মিলিয়ে চলা প্রভৃতি বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আমরা প্রতিনিয়ত চিন্তিত থাকি।আমরা এখন বৈশ্বিক স্বাস্থ্য সংকটে ভুগছি। এতে আমরা মানসিকভাবে দুর্বল হয়ে পড়ছি।মাঝেমাঝে জীবনে অনেক কঠিন সমস্যা আসে।যদি আপনার প্রয়োজন হয়,তাহলে চিৎকার করে কাঁদতে পারেন।তারপর এই দশটি কাজ করার চেষ্টা করুন যেগুলো আপনাকে কৃতজ্ঞ ও সন্তুষ্ট করবে এবং বিশৃঙ্খলার মধ্যেও আপনার মনে শান্তি থাকবে।


১.এমন কিছু করুন যেটা আপনাকে আনন্দ দেয়:


আপনার পছন্দের কোন কাজ করুন।আপনি হয়তো ভাবছেন বালু দিয়ে খেললে আনন্দ পাবেন।এটাই করুন।এটা ছেলেমানুষি কাজ ভেবে চিন্তিত হবেন না।কে কি ভাববে এসব চিন্তা বাদ দিন এবং আপনার মনের শিশুসুলভ অস্তিত্বকে স্বাধীনতা দিন।


২.চা তৈরি করা:


মাঝেমাঝে শুধুমাত্র চা তৈরি করা এবং পান করা আপনাকে অনেকটা স্বস্তি দেয়।যখন আপনি বারান্দায় বসে আপনার প্রিয় কাপের মধ্যে গরম চায়ে চুমুক দেন,তখন এটা আপনাকে মনে করিয়ে দেয় যে,আপনার কাছে অসাধারণ চা এবং সুন্দর কাপ আছে।


৩.এমন কিছু করুন যেটা আপনাকে মনে করিয়ে দিবে আপনি অনেক সুন্দর জায়গা ভ্রমণ করেছেন:


আপনি কতটা ভাগ্যবান সেটা মনে রাখা খুব গুরুত্বপূর্ণ।আপনি বিভিন্ন স্থানে ভ্রমণ করার এবং দেখার সুযোগ পেয়েছেন।সেই সুন্দর স্মৃতিগুলো আপনি আবার দেখতে পারেন।অতীতের ভাল অভিজ্ঞতা ভবিষ্যতে সামনে এগিয়ে যাওয়ার অনুপ্রেরণা দেয়।


৪.এমন কাউকে চিরকুট বা পত্র লিখুন যার প্রতি আপনি কৃতজ্ঞ:


চিরকুট পেতে সবার ভাল লাগে।আপনার মনের কথা পছন্দের মানুষকে লিখুন এবং তার সময়কে সুন্দর করে তুলুন।আপনি সাধারণত যা বলেন বা করেন সবকিছু তাকে জানান।আপনি তাকে কতটা পছন্দ করেন এবং সে আপনার জন্য কতটা গুরুত্বপূর্ণ সেটা তাকে জানান!


৫.আপনার প্রিয় পোশাক পরুন:


সুন্দর পোশাক পরার অনুভূতিকে অবহেলা করবেন না।আপনি কি পুরনো বা সাধারণ কোন পোশাক পরে আপনার প্রিয়জন বা বন্ধুদের সাথে বেড়াতে যাবেন?না,এটা করবেন না।আপনার প্রিয় পোশাকটি পরুন।যখন আপনি সহজেই নিজেকে খুশি করতে পারবেন,তাহলে কেন নয়!


৬.মেডিটেশন বা ধ্যান:


নীরবতা অনেকসময় মনে প্রশান্তি দেয়।সোজা হয়ে বসুন এবং গভীর নি:শ্বাস নিন।মাঝেমাঝে হালকা সঙ্গীত বাজাতে পারেন।যদি প্রথমে মেডিটেশন করা কঠিন মনে হয়,তাহলে হতাশ হবেন না।এটা নিয়মিত চর্চা করা প্রয়োজন।


৭.বই পড়ুন:


আপনি কি এমন কোন বই পড়েছেন যেটা পড়ে আপনি এতটা মগ্ন হয়ে গিয়েছেন যে,চারপাশের অবস্থা এবং সময় ভুলে গিয়েছেন?ভেবে দেখুন এটা কতটা আনন্দের বিষয়,বই পড়ার মাধ্যমে আপনি জীবনের অশান্তি,কষ্ট থেকে অনেকটা দূরে থাকতে পারবেন।বই পড়ার মাধ্যমে যেমন আপনার জ্ঞানের বিস্তার ঘটবে,তেমনি মনেও শান্তি পাবেন।

৮.হাঁটুন:


সবাই নিজের দেহকে সুন্দর রাখতে চায়।সকালে এবং বিকালে হাঁটুন।নিজের কাজগুলো নিজেই করার চেষ্টা করুন।যেমন-সকালের নাস্তা তৈরি করা,ঘর পরিষ্কার করা প্রভৃতি।এতে হাঁটা-চলা হয়।অবসর সময়ে আপনার পছন্দের গানের সাথে নাচতে পারেন।


৯.আপনার প্রিয় খাবার খান:


যদি আপনি আপনার প্রিয় খাবার তৈরি করতে পারেন,তাহলে খুবই ভাল- খাবার তৈরি করুন এবং এটা উপভোগ করুন।যদি আপনার প্রিয় খাবার তৈরি করতে না পারেন,তাহলে কিনে ফেলুন এবং খেয়ে নিন।অন্য কোন দিনের জন্য অপেক্ষা করবেন না।আজই এটা করুন।আপনার প্রিয় কোন রেস্টুরেন্ট হয়তো এই বছরই বন্ধ হয়ে যাবে এবং আপনি কখনো সেখানে খেতে পারবেন না।


১০.নিজেকে আলিঙ্গন করুন:


আপনার বাহু দিয়ে নিজেকে ধরুন এবং আলিঙ্গন করুন।আপনি কেমন অনুভব করছেন?এটা আপনাকে মানসিক শক্তি দিবে।মনে রাখবেন,আপনার যা কিছু প্রয়োজন সবকিছু আপনার মধ্যে আছে।আপনি চেষ্টা করলে পাহাড়-পর্বতও জয় করতে পারেন।এটা বিশ্বাস করুন যে,আপনি পারেন।




296 views0 comments

5-MinsSolution

Contact us

Tel: +8801713221592

Dhaka, Bangladesh

  • Facebook

Follow us on Facebook